মুকসুদপুরে পানিতে ডুবে এক মাদ্রাসার ছাত্রের মৃত্যু । মাদারীপুরে খাল পরিস্কার ও খালের পাড়ে থাকা ৪৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে প্রশাসন মহেশপুরের গোকুলনগর এলাকা থেকে ১০০ বতল ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ মহেশপুরের গোকুলনগর এলাকা থেকে ১০০ বতল ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ
BREAKING NEWS   ||   মুকসুদপুরে পানিতে ডুবে এক মাদ্রাসার ছাত্রের মৃত্যু ।      ||   মাদারীপুরে খাল পরিস্কার ও খালের পাড়ে থাকা ৪৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে প্রশাসন      ||   মহেশপুরের গোকুলনগর এলাকা থেকে ১০০ বতল ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ      ||   মহেশপুরের গোকুলনগর এলাকা থেকে ১০০ বতল ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ      ||   মহেশপুরের গোকুলনগর এলাকা থেকে ১০০ বতল ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ      ||   মুকসুদপুরে গৃবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে মুখে বিষ ঢেলে প্রচার অভিযোগ ।      ||   মুকসুদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ জন      ||   মুকসুদপুরে বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ।      ||   মুকসুদপুরে বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ।      ||   মুকসুদপুরে বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ।      ||   মুকসুদপুরে বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ।      ||   আলোকিত মানুষ হয়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয়      ||   চীনের সহায়তায় রোহিঙ্গা ফেরানোর প্রস্তাব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর      ||   ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা      ||   তিনি ছি লেন দলিত মানুষের ত্রাণকর্তা     
তারিখ: 2015-03-08 | সময়: 15:49:36 | প্রতিনিধি:
(নিউজটি কেউ কাটিং করবেননা) খোন্দকার বেলায়েত হোসেমুকসুদপুরের আচারপাড়া গ্রামের সম্ভ্রান্ত ন ঃ গোপালগঞ্জের হিন্দু পরিবারের মুকন্দ বিহারি বিষ্বাষেরi ছয় মেয়ের মধ্যে বড় মেয়ে কল্পনা মন্ডলের বয়স যখন ২৪ তখন আাচারপাড়া-আড়ুয়াকন্দি গ্রামে সর্বদাই মারামারি , হানাহানি , হত্যা , মামলা লেগেই থাকতো। তখন ঐ গ্রামে কোন শিক্ষিত পরিবার ছিলনা। যারা শিক্ষিত ছিলেন তারা মারামারি, মামলার ভয়ে গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র বসবাস করতেন । গ্রামের মারামারি হানাহনি সমাজ থেকে দুর করার জন্য শিক্ষিত সমাজ গঠনের উদ্দেশ্যে ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের নিয়ে বাড়িতে ১৯৮৮ সালে একটি পাঠশালা খুলেন। চলতে থাকে মানুষ গড়ার সপ্নের চাকা । ১৯৯০ সালে এস.এস.সি পরীক্ষার সময় ছোট বোনকে পরীক্ষা দিতে নিয়ে গেলে মুকসুদপুরের কালিনগর সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দুলাল চন্দ্র মন্ডলের সাথে তার পরিচয় হয় এবং তার অনুপ্রেরনায় বাড়িতে এসে বাবার নিকট স্কুল করার জন্য ৩৩ শতক জমি চান। তার বাবা বিদ্যালয়ের নামে জমি দলিল করে দিলেন এবং ১৯৯৪ সালে সেখানে টিনশেটের একটি ঘড় নির্মান করে চার জন শিক্ষক নিয়ে স্কুল শুরু করেন । পর্যায়ক্রমে তার ছোট তিন বোন সাধনা বিষ্বাষ(বি.এ.সি.এন.এট),কামনা বিষ্বাষ (বি.এ.সি.এন.এট),ক্ষমা বিষ্বাষ (এম.এ.সি.এন.এট) সহকারী শিক্ষক পদে যোগদান করেন। শুরু হয় চার বোনের পথ চলা। দীর্ঘ ১৫ বছর পর ২০০৫ সালের ২০ ই এপ্রিল এমপিও ভুক্ত হয়ে স্বপ্ন আলোর মুখ দেখতে থাকে তারা। ২০১৩ সালের জানুয়ারী মাসে স্কুলটি সরকারীকরন হয়ে কল্পনা বিষ্বাষের স্বপ্ন পুরন হয় । স্কুলটি পরিদর্শনে গেলে দেখা যায়, নির্মিত ভবনটির দেয়ালে রয়েছে অসংখ্য ফাটল। এব্যাপারে কল্পনা আক্তার জানান, ভবনটি নির্মানের সময় তারা এলাকায় ছিলেন না। অতি অল্প সময়ের মধ্যে এফাটলের সৃষ্টি হয়। ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের নিয়ে তিনি এখন আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। তিনি আরও জানান, স্কুলে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা, টয়লেটসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা না থাকায় প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে 252 বার
শিক্ষাঙ্গন
১০ জনের জীবন বাঁচানো কিশোরকে শিক্ষা সহায়তা

মুকসুদপুরে বিশ্ব শিক্ষা অভিযান সপ্তাহ পালিত

চার বোনের স্বপ্নের একটি স্কুল

কি সেবা কিভাবে পাবেন

কি সেবা কিভাবে পাবেন

 
 
  Copyright © muksudpurbarta.com 2015, Developde by JM IT SOLUTION